২৮শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • এবার বিক্ষোভে নেমেছে লেবাননে প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীরা




  • এবার বিক্ষোভে নেমেছে লেবাননে প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীরা

    ১৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ করেছে লেবাননের প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীরা। বৈরুত রফিক হারিরি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত লিবান নেট নামক ক্লিনার কম্পানীর বাংলাদেশী কর্মীরা এই বিক্ষোভ করেন। লেবানিজ মুদ্রায় নয় বরং ডলারে বেতনের দাবিতে এই বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন বলে জানা যায়।

    বিক্ষোভকারীরা জানান, তাদের বেতন ডলারে পরিশোধ করার কথা থাকলেও কম্পানী এখন বেতন দিচ্ছে লেবানিজ মুদ্রায়। ১শত ডলারে কম্পানী বেতন দিচ্ছেন লেবানিজ মুদ্রায় ১লক্ষ ৫০হাজার। কিন্তু বর্তমান লেবাননে কোথাও ২লক্ষের নিচে ডলার মিলছেনা। কোন দিন ডলারের দাম ২লক্ষ ৫০ হাজার পর্যন্ত গিয়ে দাড়ায়। এতে বিশাল ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন তারা।

    তাদের দাবি কোম্পানি ডলার বেতন না দিতে পারলেও বর্তমান ডলার মূল্য সমপরিমাণ লেবানিজ মূদ্রায় যেন তাদের বেতন পরিশোধ করা হয়। তাদের দাবি যদি পূরনে কম্পানী ব্যর্থ হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য তারা কাজে যোগ দেয়া থেকে বিরত থাকবেন এবং অন্যথায় তারা দেশে ফেরত যেতেও প্রস্তুত বলে জানান বিক্ষোভকারী বাংলাদেশী কর্মীরা।

    বর্তমানে লেবাননে ডলার সংকটের কারনে সকল পণ্যের মূল্য উর্ধ্বগতি হওয়ায় সীমিত আয়ের প্রবাসীরা বিপাকে পড়ে নানান সমস্যায় হিমশিম খাচ্ছেন।

    বিক্ষোভ প্রদর্শনকারীদের একটি ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর কমিউনিটির নেতারা দেশের সুনাম রক্ষার্থে বৈরুত বাংলাদেশ দূতাবাসের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

    দূতাবাস সুত্র জানা যায়, এবিষয়ে উক্ত কম্পানীর সাথে তারা বসবেন। কম্পানীর পক্ষ থেকেও ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন। আশাবাদী আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। আজ ১৭ জানুয়ারী বাংলাদেশ দূতাবাসের সাথে উক্ত কম্পানী কর্তৃপক্ষের বসার কথা রয়েছে।

    দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশীসহ আরো অন্যান্য দেশের প্রবাসীও এই কোম্পানিতে কাজ করেন বলে জানা যায়। গত সেপ্টেম্বর থেকে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ আন্দোলনের কারণে বিভিন্ন সমস্যাসহ ডলারের সংকট দেখা দেয় লেবানন।এর আগে ডলার বেতন দিলেও গত ৩/৪ মাস ধরে শ্রমিকদেরকে বেতন লেবানিজ লিরায় পরিশোধ করছে প্রায় কোম্পানি।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন