২৫শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • করোনার সরকারি তথ্য-উপাত্ত সঠিক নয়, সরকার জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করছে: ফখরুল




  • করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) সংক্রমণে

    করোনার সরকারি তথ্য-উপাত্ত সঠিক নয়, সরকার জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করছে: ফখরুল

    জনশক্তি রিপোর্ট: করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) সংক্রমণে সরকারি তথ্য-উপাত্ত ‘সঠিক নয়’ দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করছে।

    বুধবার দুপুরে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

    মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে সরকারের পক্ষ থেকে যে আক্রান্ত, অসুস্থ, সুস্থ এবং মৃত্যুর ডাটাগুলো দেওয়া হচ্ছে-আমার তো মনে হয় বাংলাদেশের কোনো মানুষ তা বিশ্বাস করে না। তিনি বলেন, সংক্রামণ যখন বাড়ছে, ওপর দিকে যাচ্ছে, তখন মৃত্যু ২/৩/৪-এ এসে পৌঁছেছে।

    ‘অথচ সেদিনই ঢাকা মেডিকেল কলেজের পরিচালক বলছেন, আমার এখানে ৩১ জন মারা গেছেন, কয়েকজনের ডায়গোনেসিস হয়েছে করোনা পজিটিভ। বাকিদেরটা আমরা এখন পর্যন্ত টেস্ট করিনি’ যোগ করেন তিনি।

    বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য হচ্ছে যে, টেস্ট করা হয় না, নির্দেশটা হচ্ছে টেস্ট করতে হবে মাঝে মাঝে।’

    তিনি বলেন, ‘যাদের এতোটুকু দায়িত্ববোধ নেই, যারা চরম দুর্দিনেও জনগণকে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না, জনগণকে বিভ্রান্ত করছে এবং তাদের সঙ্গে প্রতারণা করছে, এটা ক্রিমিনাল অফেন্স (ফৌজদারি অপরাধ) ছাড়া কী বলব আমরা?’

    মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে প্রশ্ন হচ্ছে জীবনের, জীবনের চেয়ে মূল্যবান কিছু নেই। আর এরা খুলে দিয়েছে শপিংমল। কেন? ঈদের বাজার করতে হবে আর অর্থনীতিকে চালু রাখতে হবে। এতদিন কী করলেন?’

    ‘এই যে মধ্যম আয়ের দেশে চলে গেলেন, অর্থনীতিতে আপনার রোল মডেল বিশ্বের মধ্যে। কেন বর্তমান অবস্থাকে ধারণ করার মতো শক্তি এই অর্থনীতির তৈরি হয়নি। কারণ আপনারা পুরোটাই মিথ্যা কথা বলেছেন, মানুষকে প্রতারণা করেছেন’ যোগ করেন তিনি।

    বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অত্যন্ত সুবেশী এবং টিপটপ জেন্টলম্যান। তিনি সুযোগ পেলেই বিএনপিকে আক্রমণ করেন এবং তার সুন্দর ও সুললিত ভাষায় সেই আক্রমণগুলো করেন। … জনগণ আপনার কথা বিশ্বাস করছে না।’

    তৈরি পোশাক কারখানাসমূহ খুলে দিয়ে সরকার ক্ষমাহীন অপরাধ করছে বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল। এ সময় সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, অবিলম্বে সকল গ্রেপ্তারকৃত সাংবাদিকদের মুক্তি দিন। একই সঙ্গে রাজবন্দীদেরও মুক্তির দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

    বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ব্যবস্থাপনায় সাংবাদিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ব্যবস্থা (পিপিই)প্রদান উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

    বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সহ-সভাপতি রাশেদুল হক বক্তব্য রাখেন।

    এতে দলের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন নসু, নির্বাহী কমিটির সদস্য মীর হেলাল উদ্দিন, চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান ও আতিকুর রহমান রুমন উপস্থিত ছিলেন।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন