২৬শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসায় হাসপাতাল ভাড়া নিল সরকার




  • করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসায় হাসপাতাল ভাড়া নিল সরকার

    করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় অবস্থিত বেসরকারি ইমপালস হাসপাতাল ভাড়া নিয়েছে সরকার। ২৫০ শয্যার এই হাসপাতালে এখন থেকে শুধু করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের নিবিড় চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

    পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে আরও ১৪৪ জন পুলিশ সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে আজ শুক্রবার পর্যন্ত সারা দেশে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যের সংখ্যা ১ হাজার ৪২৯। ২৫০ শয্যার রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের ওপর চাপ কমাতে ইমপালস হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড প্রাথমিকভাবে আড়াই মাসের জন্য ভাড়া নেওয়া হয়েছে।

    পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি, গণমাধ্যম ও জনসংযোগ) সোহেল রানা জানান, শিগগিরই ইমপালস হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দেওয়া শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহ ও সদিচ্ছা এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদের প্রচেষ্টায় স্বল্পতম সময়ে এই ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের সার্বক্ষণিক সুচিকিৎসার জন্য আইজিপি বহুমাত্রিক পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং ইউনিটপ্রধানদের এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন। করোনায় আক্রান্ত পুলিশের চিকিৎসায় সর্বোচ্চ প্রাধিকারের নিমিত্তে ইমপালস হাসপাতাল সংযোজন সেই প্রক্রিয়ার ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ।

    আক্রান্ত ব্যক্তির অর্ধেকই ডিএমপির:
    সারা দেশে আক্রান্ত ১ হাজার ৪২৯ জন পুলিশের মধ্যে ঢাকা মহানগর পুলিশেরই (ডিএমপি) ৭০৮ জন সদস্য। গত বৃহস্পতিবার ডিএমপিতে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ছিল ৬৬৬ এবং সারা দেশে ১ হাজার ২৮৫ জন। গতকাল পর্যন্ত পুলিশের ২ হাজার ৮১৪ সদস্য কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) ছিলেন। করোনার উপসর্গ নিয়ে ৪৭২ জন আছেন আইসোলেশনে (সঙ্গ বিচ্ছিন্ন) আছেন। এ নিয়ে ৯৬ জন পুুুলিশ সদস্য সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত যে ছয়জন পুলিশ সদস্য মারা গেছেন, তাঁরা সবাই ডিএমপিতে কর্মরত ছিলেন।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন