১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

করোনা টিকা: ভারতের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়ার পরামর্শ বিএনপির

জনশক্তি রিপোর্ট:

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা ভ্যাকসিন আমদানিতে সরকার এবং আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো গ্রুপের ব্যর্থতায় ভ্যাকসিন প্রাপ্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। একটি মাত্র উৎস থেকে করোনার ভ্যাকসিন সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী বলেও জানান তিনি।

সোমবার ( ২৬ এপ্রিল) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন। বিএনপি মহাসচিব জানান, গত ২৪ এপ্রিল দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে, অবিলম্বে মূল্য পরিশোধিত ভ্যাকসিন সরবরাহের জন্য ভারত সরকারের সঙ্গে বোঝাপড়া করতে হবে। ব্যর্থ হলে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আইনের আশ্রয় গ্রহণ করতে হবে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার শুধুমাত্র নিজেদের আর্থিক স্বার্থ হাসিলের জন্য সরকার নিজে আমদানি না করে তাদের পছন্দমত চিহ্নিত দুর্নীতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দিয়ে দেশে টিকা আমদানি করেছে।

কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে সরকার শুধুমাত্র নিজেদের দুর্নীতির সুযোগ খুঁজেছে জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে সমগ্র জাতিকে চরম স্বাস্থ্য বিপর্যায়ের দিকে ঠেলে দিয়ে নিজেদের অযোগ্যতা, দায়িত্বহীনতা ও দুর্নীতির প্রমাণ দিয়েছে। জনগণকে এই চরম অনিশ্চয়তা ও জীবনের ঝুঁকি তৈরি করার অপরাধে সরকারকে অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন হতে হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এ ব্যর্থতার দায় নিয়ে অবিলম্বে পদত্যাগ করা উচিত বলেও মনে করেন মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, স্বাধীনতা দিবসে নরেন্দ্র মোদীর সফরকে কেন্দ্র করে সরকার সৃষ্ট পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে গণহারে মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতার শুরু করায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ জানানো হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ক্রমাগত মিথ্যাচার এবং ঘটনাগুলোর সঙ্গে বিএনপি’র শীর্ষ নেতৃত্বসহ বিএনপি নেতা-কর্মীদের সম্পৃক্ত করে কল্প কাহিনী প্রচার সরকারের কর্তৃত্ববাদী একনায়কতান্ত্রিক একদলীয় রাষ্ট্র ব্যবস্থা বাকশাল প্রতিষ্ঠার চক্রান্তের একটি অংশ বলে প্রতীয়মান হয়।

আরও পড়ুন