২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
পুলিশ বাহিনীকে দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত করার পদক্ষেপ সিঙ্গাইরে সাত মামলার পলাতক আসামি ডাকাত রিয়াজুল গ্রেফতার এক দিনে ৪৭ মামলার রায়, হাসিমুখে বাড়ি ফিরলেন ৪৬ দম্পতি নোয়াখালী জেলা রোভারের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ পরশ ও যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের ভার্চুয়াল সভা পৌর নির্বাচন ও দলীয় কাউন্সিলকে সামনে রেখে সিঙ্গাইর উপজেলা আ.লীগের বর্ধিত সভা গৃহকর্মীকে ধর্ষণের পর সাততলা থেকে ফেলে দেওয়া হয় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঢাকা মহানগর উত্তর আ.লীগের অর্থ সম্পাদক হলেন শিল্পপতি সালাম চৌধুরী টিউশন ফি ছাড়া অন্য খাতে অর্থ নিতে পারবে না স্কুল-কলেজ
  • প্রচ্ছদ
  • চরফ্যাশন অনুমতি ছাড়াই চলছে সান রাইজ কিন্ডারগার্ডেন




  • চরফ্যাশন অনুমতি ছাড়াই চলছে সান রাইজ কিন্ডারগার্ডেন

    এম. মাহাবুবুর রহমান নাজমুল, জেলা প্রতিনিধি, ভোলা ।।

    শিক্ষাই জাতীর মেরুদন্ড। শিক্ষা ছাড়া জাতীর উন্নয়ন সম্ভব নয়। এই প্রতিপাদ্যকে পেছনে রেখে শিক্ষা অফিসের অনুমতি ছাড়াই আইনকে বৃদ্ধাংগুলি দেখিয়ে দিবালকে চলছে সান রাইজ কিন্ডারগার্ডেনের পড়াশোনা। কোমলমতি শিশুরা যে সময় স্কুলে যাওয়ার কথা ঠিক সে সময়ই অভিভাবকদের ভুল বুঝিয়ে শিশুদেরকে নিয়ে যায় কিন্ডার গার্টেনে। এতে দিন দিন স্কুল ছেড়ে কিন্ডার গার্ডেনে পড়ার ঝুকি বেড়েই চলেছে। দেখার যেন কেউ নেই। এমনই অভিযোগ ভোলার চরফ্যাশনে আমিনাবাদের ৫নং ওয়ার্ডের সান রাইজ কিন্ডার গার্ডেনের বিরুদ্ধে।
    প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আমজাদ মাল ও তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম শিক্ষক হিসেবে ক্লাস করেন। এলাকা সূত্রে জানা যায়, সান রাইজ কিন্ডারগার্ডেন কোন মতে অনুমতি ছাড়াই ক্লাশ শুরু করে দেয়। শুধু তাই নয়, জানুয়ারি মাসে ক্লাস শুরু করার কথা থাকলেও তাড়াহুড়ো করে ডিসেম্বর মাসে ক্লাশ শুরু করে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের কথা থাকলেও পাওয়া যায়নি কোন জাতীয় পতাকা।


    কিন্ডারগার্ডেনের পরিচালকের সাথে কথা বললে তিনি জানান, প্রতিষ্ঠানটি কেবল শুরু করেছি, ভালোভাবে পরিচালনার চেষ্টা করবো, দ্রæত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র করে নিব।
    কিন্ডারগার্ডেনের প্রধান শিক্ষিকাকে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, পরিচালককে অনেকবার বলেছি, কিন্তু তিনি কাগজপত্র ঠিক করেনি, আর জাতীয় পতাকা কিনেনি। আমরা শীঘ্রই কাগজপত্র করে নিব। কমিটির কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, কমিটি এখনও হয়নি। আমরা আস্তে আস্তে কমিটি করে নিব।
    এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার তৃষিত কুমারকে অবহিত করলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখবো।
    উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে দ্রæত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    আরও পড়ুন