২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
পৌর নির্বাচন ও দলীয় কাউন্সিলকে সামনে রেখে সিঙ্গাইর উপজেলা আ.লীগের বর্ধিত সভা গৃহকর্মীকে ধর্ষণের পর সাততলা থেকে ফেলে দেওয়া হয় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঢাকা মহানগর উত্তর আ.লীগের অর্থ সম্পাদক হলেন শিল্পপতি সালাম চৌধুরী টিউশন ফি ছাড়া অন্য খাতে অর্থ নিতে পারবে না স্কুল-কলেজ লেবানন কেন্দ্রীয় আ’লীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠন সত্যি হলো আসিফ নজরুলের ভবিষ্যত বানী, বাইডেন ৩০৬ ও ট্রাম্প ২৩২ সিঙ্গাইরে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষে নারী উন্নয়ন সংস্থার সংবাদ সম্মেলন ফ্রান্সে মহানবীর (সা) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন: প্রতিবাদে তারাকান্দায় মিছিল সমাবেশ বাসে আগুন, বিএনপির ৪৪৬ নেতাকর্মীর নামে ৯ মামলা,আটক ২০
  • প্রচ্ছদ
  • চরফ্যাশন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অন্তঃসত্বা নারীকে ভুল ইনজেকশন পুশ করাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি




  • চরফ্যাশন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অন্তঃসত্বা নারীকে ভুল ইনজেকশন পুশ করাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি

    এম.মাহাবুবুর রহমান নাজমুল, জেলা প্রতিনিধি, ভোলা ।।

    চরফ্যাশন উপজেলা সদর হাসপাতালে ৫মাসের অন্তঃসত্বা ছালমা আক্তার নামের এক নারীকে ভুল ইনজেকশন পুশের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত নার্স শিখা রানীর সাথে ওই নারীর স্বজনদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার দুপুরের পর চরফ্যাশন হাসপাতালের তৃতীয় তলায় মহিলা ওয়ার্ডে এঘটনার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো.সিরাজ উদ্দিন এবং আব্দুল্যাহপুর ইউপি চেয়ারম্যান আল এমরান প্রিন্সের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। এসময় দুর্ব্যবহারের অভিযোগ তুলে ১ঘন্টা রোগী সেবা বন্ধ রাখেন নার্সরা।
    ছালমার স্বামী নজরুল ইসলাম বলেন, আমার স্ত্রী সুর্যের হাসি ক্লিনিকে চাকুরী করে। জ্বর জনিত কারণে আমার স্ত্রীকে বৃহস্পতিবার চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী আমরা হাসপাতাল রোডস্থ সুরমা ড্রাগ হাউজ থেকে ঔষধ কিনি। কিন্তু দোকান মালিক মাহাবুব ঔষধ পরিবর্তণ করে রক্সা ডেক্্র ইনজেকশনের পরিবর্তে লিন্ডাডেক্স ইনজেকশন দেন। ঔষধ এনে নার্স শিখা রানীর হাতে দেয়ার পর তিনি ওই ইনজেকশন হাতে নিলে আমার স্ত্রী ইনজেকশনটি পুশ করতে নিষেধ করেন এবং ইনজেকশনটি ব্যাথা বাড়ানোর জন্য ডেলিভারীর আগে রোগীকে পুশ করা হয় এ কথা বলা মাত্র নার্স শিখা রানী ক্ষেপে যান এবং বলেন আপনি কি বড় ডাক্তার হয়ে গেছেন এই বলে তার কথা না শুনে ইনজেকশনটি পুশ করেন। কিছুক্ষনের মধ্যে আমার স্ত্রীর পেটের ব্যাথা উঠলে আমি নার্সকে ডেকে আনি। ঘটনা প্রত্যক্ষ করে নার্স শিখা রানী কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। নার্সের ভুল ইনজেকশনে স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্টের আশংকা করেন নজরুল।
    চরফ্যাশন হাসপাতালের গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. হোসনেয়ারা জানান, এঘটনায় রোগীকে আল্টাসোনো গ্রাম করাতে বলেছি। রিপোর্ট না দেখতে কিছু বলা যাবেনা।
    অভিযুক্ত নার্স বলেন, আমি এই ইনজেকশনটি পুশ করিনি,ব্যবস্থাপত্রে নির্দেশিত ইনজেকশন পুশ করেছি। রোগীর স্বজনরা মিথ্যা অভিযোগ তুলে আমার সাথে অসৌজন্যমুলক আচরন করেছে।
    চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.সিরাজ উদ্দিন জানান, ভুল ইনজেকশন পুশের অভিযোগ পেয়েছি। রোগীর স্বজন এবং নার্সের কথায় গড়মিল আছে। রোগীকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। রোগী এবং গর্ভের সন্তান ক্ষতিগ্রস্ত হলে তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্ত নার্সের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    আরও পড়ুন