২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • চরফ্যাশন হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৮




  • চরফ্যাশন হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৮

    এম. মাহাবুবুর রহমান নাজমুল, জেলা প্রতিনিধি, ভোলা।।

    চরফ্যাশন হাজারীগঞ্জ ৭নং ওয়ার্ডে নদীতে মাছ ধরতে যাওয়াকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ৮ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন- আবুল কালাম (৪৫), জসিম (২৬), নুরে আলম (২৩), আকলিমা (১৯), ফাহিমা (৪০), মতিন (২২), নুর বানু (৪০), রুহুল আমিন (৫০)। গুরুতর আহত হন আহতরা চরফ্যাশন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার সকাল ৮টার দিকে রুহুল আমিনের নেতৃত্বে তার স্ত্রী বিবি হোসনেয়ারা, কাশেম মাঝি, রাসেল, সাকিব, রিয়াজ, হাছনাইন, ফাতেমা প্রতিপক্ষ আহতদের বাড়ীতে অতর্কিত ভাবে দেশীয় লাঠিসোটা দিয়ে হামলা করে। রুহুল আমিন গং আবুল কালামের ছেলে মতিনকে নদীতে মাছ ধরতে নিতে চায়। কিন্তু মতিন অন্য নৌকায় মাছ ধরবে বলে জানালে রুহুল আমিন গং তার সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে তাদের উপর হামলা করে গুরুতর আহত করে। এরই সূত্র ধরে হাজারীগঞ্জ চেয়ারম্যান সেলিম হাওলাদার উভয়পক্ষকে সালিশীর মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করবে বলে আশ্বাস প্রদান করলেও গতকাল সোমবার রুহুল আমিনের ছেলে মিরাজ ঢাকা থেকে এসে স্থানীয় আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে পুনরায় আবুল কালামের বাড়ীতে হামলা করে তার পূত্রবধু আকলিমাকে মারধর করে এবং নুরে আলমের মাথায় আঘাত করে। এসময় তাদের ঘর ভাঙচুর করা হয়। হামলা ও ভাংচুর করে যাওয়ার সময় মিরাজ তার দলবল নিয়ে তাদেরকে মিথ্যা মামলা ও পুনরায় মারধর করবে বলে হুমকি ধামকি প্রদান করবে। এ ঘটনায় হাজারীগঞ্জ চেয়ারম্যান সেলিম হাওলাদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি ঘটনা সম্পর্কে অবগত আছি। উভয়পক্ষের বেশকয়েকজন হাসপাতালে ভর্তি আছে। তারা হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলে স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মিমাংশা করে দেওয়া হবে। ইউপি সদস্য আলমগীর মেম্বার বলেন, ঘটনা শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে স্থানীয় ভাবে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করি। চেয়ারম্যান সাহেবের নেতৃত্বে আমরা বিষয়টি ফয়সালা করে দিব। শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুল ইসলামকে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন