২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
মালয়েশিয়ায় বেগম খালেদা জিয়া সুস্থতার জন্য মালয়েশিয়া বিএনপির দোয়া মাহফিল বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করেছে মালয়েশিয়া যুবদল ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন কন্ঠশিল্পী মমতাজ সিংগাইরে শয়ন কক্ষ থেকে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার মানিকগঞ্জে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭ জন সালথায় সহিংসতায় ৪ হাজার জনকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ ‘শিশু বক্তা’ মাওলানা রফিকুল ইসলামকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেয়ার অভিযোগ! সিঙ্গাইর সদর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক সেলিম ও যুগ্ম-আহ্বায়ক সালাম ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদ ও থানা ঘেরাও, এসিল্যান্ড অফিসে আগুন সিঙ্গাইরে লকডাউন কার্যকরে তৎপর প্রশাসন

ছাত্রলীগ নেতা মিরুর খুনীদের ফাঁসির দাবীতে শোক র‌্যালী

জনশক্তি রিপোর্ট:

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন মিরু হত্যার বিচারের দাবীতে শোক র‌্যালী ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৬মার্চ) সকাল ১১টার দিকে এ শোক র‌্যালী হয়। এতে অংশ নেন নিহত ফারুক হোসেন মিরুর সহপাঠী, বন্ধু-বান্ধব উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

এদিন সকাল ১১ টার দিকে পৌর এলাকার ক্যাফে আড্ডা থেকে শুরু হয়ে শোক র‌্যালীটি সিঙ্গাইর পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে সেখানে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ শহিদুর রহমান, নিহত মিরুর সহপাঠী নাঈম বিশ্বাস, সিরাজুল ইসলাম, মোসাম্মাৎ রেদোয়ানা রহমান ও মোসাম্মাৎ মদিনা আক্তার প্রমুখ।

বক্তারা ছাত্রলীগ নেতা ফারুক হোসেন মিরুর খুনীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারকার্য সম্পন্ন করে তাদের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানান। প্রতিবাদ সভা শেষে মিরুর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তারা।

এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বারেক খান, সদস্য আব্দুর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমানসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য: দলীয় কোন্দল ও আধিপত্য বিস্তারের জেরে গত সোমবার (১ মার্চ) দিবাগত রাত একটার দিকে উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন পুরাতন বাসষ্ট্যাণ্ডে বিএডিসি গোডাউনের সামনে ছাত্রলীগ নেতা ফারুক হোসেন মিরু সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন। মঙ্গলবার (২ মার্চ) দুপুর সাড়ে ১২ টায় ঢাকাস্থ জাতীয় অর্থোপেডিক (পঙ্গু) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় ১২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করেন নিহত মিরুর বড় ভাই মোঃ রেজাউল করিম হিরু। পুলিশ এজাহার ভূক্ত তিন আসামীকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। তারা মিরু হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্ধী দিয়েছেন।

আরও পড়ুন