১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • ঢামেকের বার্ন ইউনিটে করোনা রোগীদের স্থানান্তর শুরু
  • ঢামেকের বার্ন ইউনিটে করোনা রোগীদের স্থানান্তর শুরু

    ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল,শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে রোগীদের স্থানান্তর করা হচ্ছে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে।

    করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগীদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর শুরু হয়েছে। বুধবার(১৫ এপ্রিল) বিকেল থেকে রোগী স্থানান্তর শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এম কে এম নাছির উদ্দীন।

    বার্ন ইউনিটে বর্তমানে প্রায় তিনশ’ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাদের আগামী তিন দিনের মধ্যে স্থানান্তর করা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি। এম কে এম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘আজ বিকাল থেকে রোগীদের পালাক্রমে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, এখানে প্রায় ৩ শ’ রোগী রয়েছে, তিনদিনের মধ্যে সব রোগীকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হবে। পরে বার্ন ইউনিটকে করোনা ইউনিট তৈরি করা হবে।

    ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে রোগীদের স্থানান্তর করা হচ্ছে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে।

    এর আগে গত ১০ এপ্রিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ বার্ন ইউনিটকে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা বিষয়ে একটি আদেশ জারি করা হয়। এতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাওয়ায় ঢাকা মহানগরীতে কোভিড-১৯ হাসপাতাল সম্প্রসারণের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে এবং ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে অবস্থিত বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটকে কোভিড-১৯ হাসপাতাল হিসেবে ডেডিকেটেড করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

    চিঠিতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগীদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তরের অনুরোধ জানানো হয়েছিল। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ নির্দেশনা অনুযায়ী রোগীদের স্থানান্তর কাজ চলছে।

    লাইটনিউজ/এসআই

    আরও পড়ুন

    [X]