২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • তীব্র শীতে কাঁপছে রাজশাহী




  • তীব্র শীতে কাঁপছে রাজশাহী

    সপ্তাহ খানেকের বেশি সময় ধরে রাজশাহীতে অব্যাহত আছে শীতের তীব্রতা। কুয়াশার সাথে হিমেল বাতাসে বেড়েছে ঠাণ্ডা। ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। স্বল্প আয়ের মানুষেরা ভিড় করছেন শহরের গরম পোশাকের বাজারগুলোতে।

    রাজশাহীতে জেঁকে বসেছে শীত। ভোর থেকে কুয়াশা ও হিমেল বাতাসে সূর্যের দেখা মিলছে দেরিতে। দিনভর থাকছে কুয়াশাচ্ছন্ন পরিবেশ। কনকনে শীতে ভোগান্তিতে পড়ছেন ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষেরা। রাতে-দিনে শীত থেকে বাঁচতে খড়কুটো জ্বালিয়ে তাপ পোহাচ্ছেন অনেকে। আর শীতের পোশাকের অভাবে দুর্ভোগ বেড়েছে প্রান্তিক ও দুস্থ মানুষজনের।

    স্থানীয় এক বৃদ্ধ বলেন, অনেক ঠাণ্ডা। শীতের থরথর করে কাঁপছে মানুষজন।

    এক নারী বলেন, মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। গরীব যারা তারা তো শীতের কাপড়ই পায় না।

    বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) জেলায় মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সপ্তাহের বেশি সময় ধরে অব্যাহত আছে শীতের এ তীব্রতা। এ থেকে রক্ষা পেতে ফুটপাতে স্বল্পমূল্যের গরম কাপড়ের দোকানগুলোতে ভিড় করছেন ক্রেতারা।

    আর গেল দু’বছরে শীত পোশাকের ব্যবসার ঘাটতি পেরিয়ে এবার বিক্রি বাড়ায় খুশি গরম কাপড়ের বিক্রেতারা।

    এক বিক্রেতা বলেন, এবার একটু শীত বেশি। আর তাই ক্রেতাও বেশি। আমাদের বেচাকেনাও তুলনামূলক বেশি।

    আরেকজন বলেন, সব ধরণের গরম কাপড়ই বিক্রি হচ্ছে কিন্তু কম্বল আর মাফলার বিক্রি হচ্ছে বেশি।

    দীর্ঘ সময় জুড়ে কনকনে ঠান্ডা থাকায় নগরীতে গত দু’বছরের চেয়ে গরম কাপড় বেচাকেনা দ্বিগুণ ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন ফুটপাত ব্যবসায়ীরা।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন