২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

তুচ্ছ ঘটনায় সিঙ্গাইরে মুদি দোকানীকে কুপিয়ে হত্যা

আমীনুর রহমান, সিঙ্গাইর, মানিকগঞ্জ:

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাসির হোসেন (২৮) নামে এক মুদি দোকানীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। বুধবার (৯ জুন) সন্ধা সাড়ে সাতটার দিকে হেমায়েতপুর-সিঙ্গাইর-মানিকগঞ্জ অাঞ্চলিক সড়কের পূর্ব বাস্তা বাসস্ট্যান্ডে এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত নাসির ওই এলাকার ইছহাক মিয়ার ছেলে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহতের পারিবার ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে গত মঙ্গলবার (৮ই জুন) নিহত নাসির হোসেনের চাচাতো ভাই অারিফুল ইসলামের (১৪) সাথে একই গ্রামের কালা মিয়ার ছেলে কামরুল ইসলামের (২০) কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে অারিফুল ইসলামকে মারধর করে কামরুল ইসলাম ও তার লোকজন। ওই দিনই এঘটনার বিচার চাইতে আরিফুল ইসলাম তার চাচাতো ভাই বসির ও সাব্বিরকে সাথে নিয়ে কামরুল ইসলামের বাড়িতে যায়। সেখানেও তাদের মারধর ও লাঞ্চিত করা হয়। এঘটনার পর থেকে দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

এরই মধ্যে বুধবার (৯ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে কামরুল ইসলাম, তার চাচাতো ভাই লাভুসহ ১০-১২ জন লোক ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে অারিফুল ইসলাম ও চাচাতো ভাই নাসির হোসেনসহ তাদের পরিবারের লোকজনের উপর হামলা করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে নাসির হোসেন ও লাভুসহ দুই পক্ষের অন্তত পাঁচজন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে ঢাকার সাভার এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় স্বজনরা। এদের মধ্যে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত নাসির হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত নয়টার দিকে মারাযান।

খবর পেয়ে সহকারি পুলিশ সুপার (সিঙ্গাইর সার্কেল) রিয়াজুল হক ও পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্লাসহ থানার অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্লা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহত নাসির হোসেনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ কাজ করছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন