৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সাভারে সময় টিভির সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা সিঙ্গাইরে হেরোইন সেবনের অভিযোগে মাদকাসক্তকে ৬ মাসের কারাদণ্ড সিঙ্গাইরে পুলিশের উদ্যোগে অটোরিকশা চালকরা পেল জেলা পরিষদের খাদ্যসামগ্রী অটোরিকশা চালকদের খাদ্যসামগ্রী দিয়ে প্রশংসিত ওসি সিঙ্গাইর পৌর এলাকায় ন্যায্য মুল্যে ওএমএস’র চাল ও আটা বিক্রি শুরু লকডাউনে সিঙ্গাইরে কারখানা খোলা রাখায় পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের দায়ে সিঙ্গাইরে ৫১ জনকে ৫৬৪০০ টাকা জরিমানা এবার ঈদে কোরবানি হয়েছে ৯৭ লাখ পশু, অবিক্রীত ২৮ লাখ ডিসির মহানুভবতা: দণ্ডের পরিবর্তে খাদ্যসামগ্রী পেল অটোরিকশা চালকরা লেবাননে বাংলাদেশী প্রবাসীদের ঈদ আনন্দ মেলা

দায়িত্ব গ্রহণ করলেন মানিকগঞ্জ নবাগত জেলা প্রশাসক আব্দুল লতিফ

মোবারক হোসেন

মোবারক হোসেন

মানিকগঞ্জে নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। মঙ্গলবার (২২ জুন) বিদায়ী জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌসের কাছ থেকে তিনি আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব বুঝে নেন। মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ ২৪ তম বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ও ইংল্যান্ডের গ্রিনিচ বিশ্ববিদ্যালয়,থেকে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন।

এদিন দায়িত্ব গ্রহণের পর সার্কিট হাউজ হলরুমে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। এর আগে তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত ও শুভেচ্ছা জানান জেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ মানিকগঞ্জ জেলাকে ঘুষ-দুর্ণীতিমুক্ত একটি উন্নত জনপদ হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এজন্য তিনি জেলার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সব শ্রেনীপেশার মানুষের সহযোগীতা কামনা করেন।

এসময় মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক, ফৌজিয়া খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মনিরুজ্জামান, ও জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দুর-রে-শাহওয়াজসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন,।

মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ ২৪ তম বিসিএস পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ২০০৫ সালে রংপুর জেলায় সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। সেখানে তিন বছর দায়িত্ব পালন শেষে ২০০৮ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত মাদারীপুর সদর ও ২০০৯ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিসেবে কাজ করেন। এরপর ২০১১ সালে পদোন্নতি পেয়ে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্ব পান। সেখান থেকে ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বদলি হয়ে ওই বছরের সেপ্টেম্বরে ঢাকার ধামরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। ধামরাইয়ে ৬ মাস দায়িত্ব পালনের পর উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইংল্যান্ডে পারি জমান। দেশটির গ্রিনিচ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে উচ্চ শিক্ষাগ্রহণ শেষে ২০১৬ সালের মার্চ মাসে সহকারী পরিচালক (সিনিয়র সহকারী সচিব). হিসেবে ঢাকার বিয়াম ফাউন্ডেশনে কাজ করেন। একই বছরের আগস্ট মাসে ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নিযুক্ত হন। ২০১৭ সালের জুলাই মাসে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সিনিয়র সহকারী সচিব ও পরবর্তীতে উপসচিব পদে পদোন্নতি পান। সেখানে ২০২১ সালের মে মাস পর্যন্ত অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

এছাড়া জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়সহ কর্মজীবনের সর্বত্রই অসামান্য অবদান ও সততার বিরল উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত রেখেছেন মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ। কখনো অন্যায়ের সাথে আপোষ করেননি তিনি। এরই স্বীকৃতি স্বরূপ সরকারের নির্দেশ গত ৩১ মে তাকে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) হিসেবে নিয়োগ প্রদান করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

জেলা প্রশাসক আব্দুল লতিফের বাড়ি জামালপুর জেলায়। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত। তার স্ত্রী কেয়া আক্তার একজন আদর্শ গৃহিনী। তাদের ঘরে একটি কন্যা ও একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

আরও পড়ুন