২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সিঙ্গাইরে শিশু বলাৎকার মামলার প্রধান আসামী মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার লেবাননে ফের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, প্রবাসীদের উপচেপড়া ভির লেবানন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত সিঙ্গাইরে দেয়ালে অঙ্কিত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনের আজ শুভ জন্মদিন বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে মালয়েশিয়ায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত যে কারণে হত্যার শিকার শিশু আল-আমীন, রহস্য উদঘাটন সিঙ্গাইর থানার ওসির পিতার মাগফিরাত কামনায় দোয়ার মাহফিল কানাডা প্রবাসী প্রয়াত জয়নুল আবেদীন স্বরণে দোয়ার মাহফিল তিনদিন পর সিঙ্গাইরে নিখোঁজ শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

ধামরাইয়ে ‘ফ্রেন্ডস২০০০.কম’র আয়োজনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প

আরিফুল ইসলাম: ঢাকার ধামরাইয়ে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ফ্রেন্ডস২০০০.কম’র আয়োজনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘STOP DIABETES’ এর আওতায় মাসের প্রথম শুক্রবার এই কর্মসূচি করা হয়।

শুক্রবার (৫ এপ্রিল) উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের বারবাড়ীয়া গ্রামে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীদের আয়োজনে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল থেকেই বারবাড়ীয়া ভোলানাথ স্কুল আ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গনে দেখা গেলো শারীরিক পরীক্ষা করাতে আসা জনতাকে। তাদের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেল, সেখানে প্রতিমাসের প্রথম সপ্তাহের শুক্রবার বিনামূল্যে ডায়বেটিস, রক্তচাপ ও ওজন মাপা হয়।

এসময় বিভিন্ন মেডিকেল বিশেষজ্ঞ সেখানে রোগী দেখেন। তারা প্রাথমিক চিকিৎসা সেবার সাথে সাথে নানা পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

স্থানীয় যুবকদের আয়োজনে এমন কাজের প্রশংসা করেন চিকিৎসা নিতে আসা জনতাও। লাভলী বেগম (৫০), সালেহা বেগম (৪৭), রোকেয়া বেগম (৩৮) বলেন, এখান থেকে এসব পরীক্ষা করাতে মানিকগঞ্জ বা ধামরাইয়ে যেতে হতো, এসব করার জন্যে আমরাও কখনো ভাবতাম না। ফলে সচেতনও ছিলাম না। কিন্ত গত কয়েকমাস হলো এসব পরীক্ষা বিনামূল্যে এখানে ঢাকা থেকে ডাক্তার এসে দেখে যান। তারা নানা পরামর্শ দেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল বাশার বলেন, স্থানীয় তরুণরা একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আমাদের এখানে কোন হাসপাতাল নেই। ফলে এসব প্রাথমিক বিষয় সম্পর্কে অনেকেই জানতে পারেন না। কিন্ত এদের উদ্যোগে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার গ্রামে আসছেন, তারা পরামর্শ দিচ্ছেন। গ্রামবাসীরা উপকৃত হচ্ছেন।

ফ্রেন্ডস২০০০.কম এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা কয়েকজন সংগঠক জানালেন সংগঠন শুরুর কথা। তারা বলেন, শুরুতে আমরা গেট-টুগেদারের মতো করে শুরু করেছিলাম। কিন্ত পরে আমরা এটিকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে রুপ দিয়েছি। স্থানীয় মানুষদের উপকারে আমরা কাজ করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করছি। শুরু থেকেই স্থানীয় সকল মানুষদের সহযোগিতা পেয়েছি। স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে গ্রামের প্রত্যেকটা যুবকই কাজ করছে। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি আমরা জনগনের উপকারে আরোও কিছু কর্মসূচি চালু করবো বলে আশা করছি।

আরও পড়ুন