৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • ‘ফিক্সিংয়ে বেশি জড়িত ভারতীয়রা’
  • ‘ফিক্সিংয়ে বেশি জড়িত ভারতীয়রা’

    জনশক্তি ডেস্ক: ফিক্সিংয়ের বিষয় নিয়ে চিন্তিত বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। স্পোর্টসম্যানশিপ ও নিজেদের সততাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ম্যাচ ফিক্সিং বা স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন নানান ক্রীড়াবিদ ও জুয়ারিরা। ক্রিকেটে এ ফিক্সিংয়ের প্রচলন অনেক পুরনো। তবে এখন তা অনেকাংশেই কমে এসেছে।

    ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসিও এ ব্যাপারে রেখেছে কড়া নজরদারি। যার অংশ হিসেবে তারা বর্তমানে নজরবন্দী করে রেখেছে শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার সিরিজকে। তাদের ধারণা শ্রীলঙ্কায় অপ্রীতিকর কিছু ঘটলেও ঘটতে পারে।

    এই কদিন আগেই আইসিসির এন্টি করাপশন ইউনিট ফিক্সিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত করেছে সাবেক লঙ্কান কিংবদন্তি সনৎ জয়াসুরিয়াকে। আরও সন্দেহভাজন অনেককে পাওয়া যাবে ভেবেই শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটে কড়া নজরদারি রেখেছে এন্টি করাপশন ইউনিট।

    তবে আইসিসির এন্টি করাপশন ইউনিটের মহাব্যবস্থাপক অ্যালেক্স মার্শাল জানিয়েছেন, সারা বিশ্বেই কম বেশি ফিক্সিং হলেও, সেগুলোর বেশিরভাগই করে থাকে ভারতীয় জুয়াড়িরা। জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান মার্শাল। শ্রীলঙ্কায় আইসিসির সন্দেহভাজন তালিকায় থাকা সবাই স্থানীয় কি-না জিজ্ঞেস করা হলে মার্শাল বলেন, শ্রীলঙ্কায় জুয়াড়িরা স্থানীয় এবং ভারতীয়ই হয় বেশি। আর আপনি যদি সারাবিশ্বের কথা বলেন তাহলে বেশির ভাগ দুর্নীতিবাজ জুয়াড়িই ভারতীয়।

    জনশক্তি/এস

    আরও পড়ুন

    [X]