১লা নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
শয়তান যেভাবে মুসলিম ভ্রাতৃত্ব বিনষ্ট করে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে এরফান গ্রেপ্তার সালাম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য: ঢাবি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে মামলা ঢাকা বিভাগের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হলেন সিঙ্গাইরের কৃতি সন্তান রেজাউল করিম তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদের সুস্থতা কামনায় রাজশাহীতে দোয়া মাহফিল সম্পত্তির লোভে মায়ের লাশ ৫ টুকরো করল ছেলে! কারাফটকে বিয়ে, তারপর মিলবে সাজাপ্রাপ্ত ধর্ষকের জামিন: হাইকোর্ট সিঙ্গাইরে যাত্রীবাহী বাস খাদে, চালকসহ তিনজন নিহত লেবাননে ফের সায়াদ হারিরি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত ডিআইজি হাবিবুর রহমানের জায়গায় হলো বেদে সম্প্রদায়ের কবরস্থান
  • প্রচ্ছদ
  • বন্ধু বন্ধুর জন্য: অসহায় মোজাফরের পাশে এসএসসি ৯৩ ব্যাচ




  • বন্ধু বন্ধুর জন্য: অসহায় মোজাফরের পাশে এসএসসি ৯৩ ব্যাচ

    কবি অনিমেষ দাস:

    প্রকৃত বন্ধুরাই বন্ধুর পাশে দাঁড়ায়। বন্ধুর বিপদে বন্ধুরা এগিয়ে যায়। ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত মোজাফফর হোসেন। এ রোগে ৬ বছর আগে একটি পা হারান তিনি। এরপর থেকে কর্মহীন হয়ে হয়ে পড়েন মোজাফফর। উপায়ন্তর না দেখে জীবন-জীবিকার জন্য বেছে নেন টিউশনি। টিউশনির সামন্য আয়ে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন কাটছিল তার। মরণব্যাধি করোনাভাইরাসের কারণে সেটিও বন্ধ হয়ে যায়। দেখা দেয় চরম অর্থাভাব। জীবনে নেমে আসে অন্ধকার। কি ভাবে তার সংসার চলবে, সেই ভাবনায় যখন দিশেহারা, ঠিক তখন অসহায় মোজাফফরের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বন্ধু সংগঠন আমরা ৯৩ ব্যাচ। তার জীবন-জিবিকার দায়িত্ব নেয় সংগঠনটি।

    মোজ্জাফফর হোসেনের বাড়ি মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার জয়মন্টপ ইউনিয়নের নয়ানী গ্রামে। শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বন্ধু সংগঠন আমরা ৯৩ ব্যাচের পক্ষ থেকে প্রাথমিক ভাবে তাকে ৩০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়।

    ৯৩ ব্যাচের সদস্য হাজী আজাদ, অহিদুল ইসলাম, ও এহেছান আহমেদ তামীম বলেন, মোজাফফরের করুণ দূর্দশার বিষয়টি আমরা ৯৩-এর এডমিন প্যানেলকে অভিহিত করা হয়। সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ওমর ফারুক মোজাফফরের সমস্যা সমাধানের জন্য “বন্ধুর জন্য বন্ধু” প্রকল্পের সদস্যদের দায়িত্ব দেন। এরই প্রেক্ষিতে শুক্রবার সংগঠনের বন্ধুর জন্য বন্ধু” প্রকল্পের সদস্যরা মোজাফফরের বাড়িতে আসেন। তারা খোজ খবর নেন এবং ব্যবসা পরিচালনার জন্য তার হাতে নগদ ৩০ হাজার টাকা তুলেদেন। পরবর্তীতে ব্যবসার মুলধনসহ সব ধরণের সহযোগীতা করার আশ্বাস দেন তারা।

    এসময় ৯৩ ব্যাচ “বন্ধু জন্য বন্ধু”প্রকল্পের সদস্য নিয়ন, কামাল হোসেন, রফিকুল ইসলাম, অহিদুল, শাহাদাত, শিশির, নিয়ন, কাজী,মামুন ও শিপনসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

    এদিকে, আমরা ৯৩-এর ঢাকার বন্ধুদের জয়মন্টপ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে উঞ্চ অভ্যর্থনা জানান স্থানীয় বন্ধুরা। বহু দিন পর তারা একে অপরকে কাছে পেয়ে আনন্দ-উৎসবে মেতে উঠে। তাঁরা ভেসে বেড়ায় ১৯৯৩ সালের স্মৃতির স্বপ্নডানায়। এসময় অনেকেই ২৭ বছর আগের ফেলে আসা সোনালী অতীত স্মৃতিচারণ করে সঙ্গোপনে দু’ফোটা আনন্দাশ্রু ঝড়ান।

    মোজাফফর হোসেন আবেগাপ্লুত কণ্ঠে বলেন, বিপদের সময় বন্ধুরা আমার প্রতি যে ভালবাসা দেখিয়েছেন তার কৃতজ্ঞতা প্রকাশের ভাষা নেই। তাদের এই ভালবাসা আর সহযোগিতার ঋণ কোনো দিন শোধ করা যাবেনা। যত দিন বেঁচে থাকব, ততদিন সবার জন্য প্রার্থনা করবো। সৃষ্টিকর্তা যেন তাদের উত্তম প্রতিদান দেন।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন