১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • বাবুগঞ্জ মুলাদিকে মডেল হিসেবে গড়তে চান আতিক
  • বাবুগঞ্জ মুলাদিকে মডেল হিসেবে গড়তে চান আতিক

    আব্দুল্লাহ মামুন,বরিশাল প্রতিনিধিঃ বরিশাল -৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদি) সংসদীয় আসনটিকে মডলে হিসেবে গড়তে চান বরিশাল বিভাগ উন্নয়ন ফোরামের সাধারন সম্পাদক স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ আতিকুর রহমান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে সাংসদ নির্বাচিত হয়ে এ আসনরে ব্যাপক উন্নয়ন করার স্বপ্ন দখোচ্ছনে তিনি। এ জন্য ভোটারদরে কাছে একবাররে জন্য সুযোগ চান সফল ব্যবসায়ী ও তরুণ এ রাজনীতিক।

    রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার সময়টা তেমন র্দীঘ না হলেও খুব কম সময়রে মধ্যে নিজের যোগ্যতার ছাপ রেখেছেন। আছেন যুবমৈত্রীর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি হিসেবে। তবে নিজ দলের নয় স্বতন্ত্র পরিচয়েই নিজের যোগ্যতাকে পূঁজি করে এলাকায় সংসদ নির্বাচনের ঘোষনা দিয়েছেন বহু আগে থেকেই। পেশায় একজন সফল ব্যবসায়ী, সারাদেশেই মানসম্মত কাজ করে ব্যাপক ভাবে সুনাম অর্র্জন করেছে তার প্রতিষ্ঠান আতিক কনস্ট্রাকশন । নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দিতার লক্ষ্য নিয়ে গত কয়কে বছর ধরইে প্রস্তুতি নিতে শুরু করনে। নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে এলাকায় বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে অংশ নেন আতিকুর রহমান।

    এ লক্ষে গত মঙ্গলবার দুপুর ১ টায় সহকারী রিটার্নিং অফিসার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজিত হাওলাদারের কাছে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন তিনি। মনোনয়ন পত্র দাখিলের খবর শুনে হাজারো সমর্থক জরো হলে তাদেরকে বাহিরে রেখে শান্তিপূর্ণ ভাবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন আতিক। ভোটারদের ভালবাসার মাধ্যমে ই বিজয় নিশ্চিত করতে হবে এবং প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে কর্মীদের সক্রিয় অবস্থান দিয়ে অপশক্তি রুখে দিয়ে পৌছতে হবে জয়ের কাঙ্খিত বন্দরে। জনগন এখন উন্নয়ন চায় ।

    বিগত দিনের জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভুল গুলো ভোটারদের সামনে তুলে ধরতে হবে। আতিকুর রহমান গতকাল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মনোনয়োন পত্র বাছাইয়ের কার্যক্রমে বৈধতা লাভকরে সেখান থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, আমি একজন সৎ ব্যাবসায়ী আমার বিরুদ্ধে আল্লাহর রহমতে কোন ধরনের দূর্নীতির কোন অভিযোগ কেউ করতে পারবেনা। মনোনয়োনের বাছাই প্রক্রিয়ায় আমার মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। যেই সাধারন মানুষের চাওয়ার প্রেক্ষিতে আমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছি তাদের দোয়ায় প্রথম ধাপ সফলতার সাথে অতিক্রম করেছি। আমি জনগনের দোয়া নিয়ে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী ।

    কারন এ অঞ্চলের অবহেলীত জনতার চাওয়া থেকেই আমি আসনটিতে প্রার্থীতা করছি। “গত দশ বছরে আওয়ামী লীগ সরকার দেশে ব্যপক উন্নয়ন করেছে। কিন্তু জনপ্রতিনিধিরা বাবুগঞ্জ-মুলাদীর প্রত্যান্ত অঞ্চলের উন্নয়ন করতে ব্যর্থ হয়েছে। আমি এখানে থেকে এই এলাকার অবহেলীত মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে চাই। এবং আমি নির্বাচিত হলে বাংলাদেশ নয় বিশ্বের কাছে বাবুগঞ্জ মুলাদীকে একটি মডেল হিসেবে উপস্থাপন করব ইনশাআল্লাহ।

    আরও পড়ুন

    [X]