১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংসদ বর্জনের সিদ্ধান্ত ভুল: প্রধানমন্ত্রী
  • বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংসদ বর্জনের সিদ্ধান্ত ভুল: প্রধানমন্ত্রী

    জনশক্তি রিপোর্ট: বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংসদ বর্জনের সিদ্ধান্তকে ভুল আখ্যায়িত করে তাদের সংসদে আসার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমামের সম্পূরক এক প্রশ্নের জবাবে দিতে গিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

    স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এদিন বৈঠকের শুরুতে প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠিত হয়।ফখরুল ইমাম বিএনপি বা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নাম উল্লেখ না করে জানতে চান, যারা সাতটি আসন পেয়ে সংসদের বাইরে রয়েছেন, তাদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান কী হবে?

    জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘১০ বছরের উন্নয়নের সুফল বাংলাদেশের মানুষ পেয়েছে বলেই অনেক আগে থেকেই তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আমাদের নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন। জনগণ সেই ভোট দিয়েছেন।’

    তিনি বলেন, ‘আমরা সম্মিলিতভাবে দেশটাকে গড়ে তুলতে চেয়েছি। এ জন্য নির্বাচনের আগে সব দলকে ডেকেছিলাম। তাদের সঙ্গে সুন্দর পরিবেশে বৈঠক করেছি এবং নির্বাচন করার আমন্ত্রণ করেছিলাম। যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে অল্প সিট পেয়েছেন, সেই অভিমান করে তারা পার্লামেন্টে আসছেন না। আমার মনে হয় রাজনৈতিক একটা ভুল সিদ্ধান্ত তারা নিয়েছেন। কারণ, ভোটের মালিক জনগণ, তারা যাকে খুশি তাদের ভোট দেবেন এবং সেভাবেই তারা ভোট দিয়েছেন। যদি তারা সংসদে আসেন আর তাদের যদি কোনও কথা থাকে তা বলার একটা সুযোগ পাবেন। এই সুযোগ কেবল সংসদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না। এখন সংসদের কার্যক্রম মিডিয়ায় সরাসরি যায়, সংসদ টেলিভিশনও আছে। এটার মাধ্যমে দেশবাসী তাদের কথা শুনতে পাবেন। এই সুযোগটা তারা কেন হারাচ্ছেন আমি জানি না! তবে আহ্বান জানাচ্ছি, যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা সবাই পার্লামেন্টে আসবেন, বসবেন এবং যার যার কথা তারা বলবেন।’

    প্রসঙ্গত, ফখরুল ইমাম সাতটি আসনের কথা উল্লেখ করলেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসন পেয়েছে। এরমধ্যে বিএনপি ছয়টি ও গণফোরাম দুটি।

    আরও পড়ুন

    [X]