২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে সিঙ্গাইর উপজেলা প্রশাসন দায়িত্ব গ্রহণ করলেন মানিকগঞ্জ নবাগত জেলা প্রশাসক আব্দুল লতিফ করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘ডেল্টা প্লাস’নিয়ে কেন এত শঙ্কা গোটা বিশ্বের? রাশিয়াকে উড়িয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করলো ডেনমার্ক সিঙ্গাইরে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ, নগদ এজেন্ট মালিককে অর্থদণ্ড প্রথম দিনে নাম নিবন্ধন করেছে ১৯৪জন পাসপোর্ট নাম্বার বিহীন লেবানন প্রবাসী সিঙ্গাইরে ট্রাকচাঁপায় মটরসাইকেল চালকের মৃত্যু একদিন নয়, প্রতিদিন হোক বাবা দিবস ব্র্যাকের মানবিধকার ও আইন সচেতনতা বিষয়ক মতনিময় সভা পরীমনির বাসা যেন মদের বার, প্রতিদিনই বসে আসর

মানিকগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর এপিএস পরিচয়ে প্রতারণা: যুবক গ্রেপ্তার

জনশক্তি রিপোর্ট:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী একান্ত সচিব-২ (এপিএস-২) পরিচয় দিতেন তিনি। দলীয় পদপদবি, দলীয় মনোনয়ন, চাকরিসহ বিভিন্ন সুযোগ ও সুবিধার আশ্বাস দিয়ে তিনি মানুষের কাছ থেকে টাকা দাবি করতেন। শেষমেশ প্রতারণার অভিযোগে আজ শুক্রবার ভোরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা এলাকা থেকে তাঁকে আটক করেছে র্যাব-৪।

প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-২ ভুয়া পরিচয় দানকারী ওই ব্যক্তির নাম রুবেল মিয়া ওরফে শাওন (৩৬)। তিনি মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের বাসিন্দা।

রুবেল মিয়া ১৪ মে মানিকগঞ্জ শহরের গঙ্গাধরপট্টি এলাকার বাসিন্দা জেলা যুব মহিলা লীগের নেত্রী ফরিদা ইয়াসমিনের কাছ থেকে প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-২ পরিচয় দিয়ে ৫৫ হাজার টাকা দাবি করেছিলেন। বিনিময়ে প্রতিবন্ধীদের বিভিন্ন সামগ্রী দিতে ২১ লাখ টাকার প্রকল্প দেওয়ার আশ্বাস দেন। তবে তাঁর কথায় সন্দেহ হলে ফরিদা ইয়াসমিন থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। প্রতারক রুবেলের আটকের খবর পেয়ে ফরিদা ইয়াসমিন র্যাব-৪ মানিকগঞ্জ কার্যালয়ে যান। সেখান থেকে তাঁর সঙ্গে প্রতারণাচেষ্টার ঘটনা জানান তিনি।

একইভাবে রুবেল জেলা যুব মহিলা লীগের নেত্রী সেলিনা আক্তারের কাছে ৫২ হাজার টাকা দাবি করেন। এদিকে ১৪ মে রুবেল মিয়া মুঠোফোনে সদর উপজেলার নবগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবসায়ী আরিফুর রহমানকে ফোন করেছিলেন। আরিফুর বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-২ গাজী হাফিজুর রহমান পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি তাঁর কাছে মুঠোফোনে টেলিভিশন দাবি করেন। পরে বিষয়টি সন্দেহজনক হলে তিনি র্যাব-৪–কে বিষয়টি জানান।

র্যাব-৪ মানিকগঞ্জ কার্যালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, কয়েক দিন ধরে মানিকগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-২ পরিচয় দিয়ে রুবেল মিয়া বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে ত্রাণ দেওয়া, আগামী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনে নৌকা প্রতীক এবং জেলা পর্যায়ে দলীয় গুরুত্বপূর্ণ পদ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে আসছিলেন। এ অভিযোগে শুক্রবার ভোররাত চারটার দিকে অভিযান চালিয়ে জেলা সদরের বেতিলা এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে তাঁকে আটক করা হয়।

র্যাব হেফাজতে আটক থাকায় অভিযুক্ত রুবেল মিয়ার সঙ্গে কথা বলা যায়নি। এ ব্যাপারে র্যাব-৪ মানিকগঞ্জ কার্যালয়ের কোম্পানি কমান্ডার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) উনু মং বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল মিয়া প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন