৩০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
শয়তান যেভাবে মুসলিম ভ্রাতৃত্ব বিনষ্ট করে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলে এরফান গ্রেপ্তার সালাম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য: ঢাবি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে মামলা ঢাকা বিভাগের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হলেন সিঙ্গাইরের কৃতি সন্তান রেজাউল করিম তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদের সুস্থতা কামনায় রাজশাহীতে দোয়া মাহফিল সম্পত্তির লোভে মায়ের লাশ ৫ টুকরো করল ছেলে! কারাফটকে বিয়ে, তারপর মিলবে সাজাপ্রাপ্ত ধর্ষকের জামিন: হাইকোর্ট সিঙ্গাইরে যাত্রীবাহী বাস খাদে, চালকসহ তিনজন নিহত লেবাননে ফের সায়াদ হারিরি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত ডিআইজি হাবিবুর রহমানের জায়গায় হলো বেদে সম্প্রদায়ের কবরস্থান
  • প্রচ্ছদ
  • মা হয়েছে পাগলী, বাবা হয়নি কেউ!




  • মা হয়েছে পাগলী, বাবা হয়নি কেউ!

    জনশক্তি ডেস্ক:

    দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক পাগলী (৫০) ফুটফুটে এক কণ্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। গতকাল রাত ১১টার দিকে তিনি ওই সন্তানের জন্মদেন। পাগলীটা মা হলেও বাবা হয়নি কেউ। পাগলী নিজেও বলতে পারছেন না যে ওই সন্তানের পিতা কে।

    জানা যায়, উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামে পাগলীর বাবার বাড়ি। ওই ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামে তার বিয়েও হয়েছিলো। সেখানে তার ২ কন্যা সন্তানও রয়েছে যারা বর্তমানে স্বামীর ঘর সংসার করছেন। প্রায় ৪ বছর পূর্বে তাকে তার স্বামী তালাক দিয়েছেন। এরপর মানসিক ভারসম্যহীনের কারণে অনেক দিন ধরেই তিনি নবাবগঞ্জ উপজেলা সদরে ঘোরাফেরা করেন। রাত হলে সদরেরই একজনের উঠানের মাঝে থাকেন। এরই মধ্যে গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে তাকে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। রাত ১১টার দিকে তিনি কন্যা সন্তান প্রসব করেন।

    কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. সাদিয়া কাশেম সাফা জানান, মা ও শিশু সুস্থ আছেন। তার প্রসবের কাহিনীর বিষয়টি নবাবগঞ্জ থানাকে অবহিত করা হয়েছে।

    নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান জানান, মেয়েটিকে অনেক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কিন্তু বলতেই পারছেন না যে তার ওই সন্তানের পিতা কে?

    মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ নাজমুন নাহার শিশুটিকে দেখতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। তিনি বলেন অভিভাবকের মানসিক অবস্থা অস্বাভাবিক। তাই শিশুটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন