২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
মালয়েশিয়ায় বেগম খালেদা জিয়া সুস্থতার জন্য মালয়েশিয়া বিএনপির দোয়া মাহফিল বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করেছে মালয়েশিয়া যুবদল ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন কন্ঠশিল্পী মমতাজ সিংগাইরে শয়ন কক্ষ থেকে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার মানিকগঞ্জে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭ জন সালথায় সহিংসতায় ৪ হাজার জনকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ ‘শিশু বক্তা’ মাওলানা রফিকুল ইসলামকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেয়ার অভিযোগ! সিঙ্গাইর সদর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক সেলিম ও যুগ্ম-আহ্বায়ক সালাম ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদ ও থানা ঘেরাও, এসিল্যান্ড অফিসে আগুন সিঙ্গাইরে লকডাউন কার্যকরে তৎপর প্রশাসন

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে ক্ষমতা ছাড়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাইডেন

জনশক্তি ডেস্ক:

সেনা অভ্যুত্থানের পর আটক অং সান সু চিসহ রাজনৈতিক নেতাদের মুক্তি দিয়ে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে ‘ক্ষমতা ত্যাগ’ করার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে প্রেসিডেন্ট বাইডেন তার প্রথম বৈদেশিক নীতির ভাষণে এই আহ্বান জানান। মিয়ানমারে টেলিযোগাযোগের ওপর আরোপিত নিয়ন্ত্রণ তুলে নেওয়ারও আহ্বান জানান বাইডেন।

এ সময় জো বাইডেন বলেন, গণতন্ত্রে কখনই জোর করে জনগণের ইচ্ছা বিরুদ্ধে কিছুই করা সম্ভব নয়। সেই সঙ্গে বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের ফলাফলকে মুছে ফেলার চেষ্টা করা উচিত নয়।

তিনি আরও বলেন, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী যে ক্ষমতা দখল করেছে তা ছেড়ে দিতে হবে। সেই সঙ্গে সব ধরনের বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করতে হবে এবং সহিংসতা থেকে বিরত থাকতে হবে।

বাইডেন বলেন, গণতন্ত্রে কোনোভাবেই কোনো বাহিনীর জনগণের অভিপ্রায়ের ওপর নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের ফল পাল্টে দেওয়ার সুযোগ নেই।

অং সান সু চির দল বিপুল ভোটে জয়ী হওয়া নভেম্বরের নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছিল বলে অভিযোগ তুলে গত ১ ফেব্রুয়ারি ভোরে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করেন সেনাপ্রধান ও সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং। তবে নির্বাচন কমিশন বরাবর বলে আসছে, ভোট সুষ্ঠু হয়েছে।

সোমবারই মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেনাবাহিনীর ক্ষমতাগ্রহণ ঠেকাতে আন্তর্জাতিক মহলকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি।

বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) জানান, মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের কারণে দেশটির ব্যক্তি ও সামরিক প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞার নির্বাহী আদেশ জারির কথা ভাবছে হোয়াইট হাউস।

আরও পড়ুন