২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • লক্ষ্মীপুরে শিশু হত্যার চেস্টার অভিযোগে নারী আটক




  • লক্ষ্মীপুরে শিশু হত্যার চেস্টার অভিযোগে নারী আটক

    দেলোয়ার হোসেন মৃধ্যা, লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে দেড় বছরের শিশু হাবিবুর রহমানের শরীরে বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আসামি খুকি বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার (২৯ মে) দুপুরে সদর মডেল থানা পুলিশ আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

    সূত্ররে জানাগেছে, নাতি হাবিবের শরীরে বিষাক্ত ইনজেকশন দেওয়ার অভিযোগে দাদা লাতু মিয়া বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সন্ধ্যায় সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। এতে খুকি বেগম একমাত্র আসামি। রাতেই পুলিশের উপ-পরিদর্শক কামরুজ্জামান নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার চর পার্বতীনগর গ্রামের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। খুকি ওই গ্রামের আবুল কাশেমের স্ত্রী। শিশু হাবিব একই গ্রামের মো. নুর নবীর ছেলে। গত ১১ মে বিকেলে কৌশলে শিশুটিকে ঘরে নিয়ে অভিযুক্ত খুকি তিনটি বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে। পরে চিৎকার শুনে মা শামছুননাহার শিশুটিকে খুকির ঘর থেকে উদ্ধার করে। ওইদিনই শিশুর দাদি রহিমা বেগম থানায় একটি অভিযোগ করেন। পরে ২৭ মে রহিমা বেগম বাদী হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

    মামলা সূত্র জানায়, চরপার্বতীনগর গ্রামের লাতু মিয়ার পরিবারের সঙ্গে প্রতিবেশী খুকিদের পারিবারিক বিরোধ চলে আসছে। এরজের ধরে ১১ মে বিকেলে খুকি কৌশলে শিশু হাবিবকে তার ঘরে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে খুকি শিশুটির শরীরে ৩টি বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে। চিৎকার শুনে মা ও বোন গিয়ে খুকির ঘর থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে। এদিকে বিষক্রিয়া হয়ে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

    বর্তমানে শিশুটি ঢাকা মেডিকেল কলেজের আইসিওতে চিকিৎসাধীন আছে। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বলা হচ্ছে, দিনদিন শিশুটির অবস্থার অবনতি হচ্ছে।

    এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, গ্রেপ্তার নারী থানা হেফাজতে আছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে। এছাড়া ইনজেকশনের সিরিঞ্জসহ আলামত জব্দ করা হয়েছে। সেগুলো পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

    Print Friendly, PDF & Email

    আরও পড়ুন