১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

লন্ডন ফেরতদের নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে

জনশক্তি রিপোর্ট:

যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে আসা সিলেট প্রবাসীরা এবার বিমানবন্দরে নেমেই বাড়ি যেতে পারবেন না। বিমানবন্দর থেকে চলে যেতে হবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে। নিজ খরচে থাকতে হবে ১৪ দিন।

এজন্য সিলেটে আপাতত দুটি হোটেল চূড়ান্ত করা হয়েছে। হোটেল দুটি হচ্ছে- হোটেল স্টার প্যাসিফিক ও হোটেল হলি গেট। যুক্তরাজ্যে ছড়িয়ে পড়া স্ট্রেইন করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

শনিবার সিলেট জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এমন বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার (সাধারণ শাখা, কোভিড-১৯ ও গণমাধ্যম শাখা) শাম্মা লাবিবা অর্ণব স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রবাসী লন্ডনীদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে হোটেল, পরিবহন প্রস্তুত করার পাশাপাশি বিমানবন্দরের সার্বিক নজরদারি ও নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যে করোনার স্ট্রেইন ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ার পর গত শুক্রবার থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর করা হয় সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।

আগামী সোমবার লন্ডনীদের নিয়ে যুক্তরাজ্যের ফ্লাইট সিলেট আসার কথা। তবে কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করার পর এবারের ফ্লাইটে যাত্রীসংখ্যা কমবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক হাফিজ আহমদ বলেন, যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে প্রতি সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট সিলেট আসে। প্রতি সোম ও বৃহস্পতিবার। বর্তমানে যারা লন্ডন থেকে আসবেন তারা নিজ খরচে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনের আওতায় থাকবেন।

সূত্র জানায়, বিমানবন্দর থেকে বিআরটিসির বাসে করে যাত্রীদের হোটেলে নিয়ে আসা হবে। যাত্রীরা যাতে হোটেলের বাইরে না আসেন এবং হোটেলে যাতে তাদের স্বজনরা প্রবেশ না করেন তা তদারকি করতে হোটেলগুলোর সামনে সার্বক্ষণিক পুলিশ থাকবে।

গত ডিসেম্বরে লন্ডন থেকে আটটি ফ্লাইটে এক হাজার ২২৬ যাত্রী সিলেটে এসেছেন। যুক্তরাজ্যে নতুন ধরনের করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তাদের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে।

তবে বাংলাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত থাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে সিলেটে। এমতাবস্থায় শুক্রবার থেকে লন্ডনীদের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন