১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • লেবাননে আ’লীগ নেতাকে মেরে ফেলার হুমকি
  • লেবাননে আ’লীগ নেতাকে মেরে ফেলার হুমকি

    ফাইল ছবি

    জনশক্তি ডেস্ক : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ লেবানন শাখার সহ সভাপতি রুবেল আমিনকে মেরে লাশ সাড়গে ভাসিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। আজ সোমবার সকালে রুবেল আমিন তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে এমনি একটি স্টাটাস দিয়েছেন। ঠিক কে বা কারা তাকে হুমকি দিয়েছেন সে সঠিক বলছে পারেননি। ফেসবুকের ফেক আডি থেকে তাকে এই হুমকি দেয়া হয়েছে বলে তিনি স্টাটাসে জানিয়েছেন। তবে তিনি রাজনৈতি প্রতিহিংসার শিকার বলেও জানান তার স্টাটাসে।

    স্টাটাসে তিনি বলেন, আমাকে এক সপ্তাহের আল্টিমেটাম দেয়া হচ্ছে দেখে নেবে। লাশ সাগরে ভাসাবে,আরো অনেককিছু। তিনি আরো বলেন, অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে লেবাননে আজ সুসংগঠিত একটি আঃলীগ সংগঠন আছে।এটা যেন অনেকের ঘুম হারাম হবার কারন। ইদানিং লক্ষ করা যাচ্ছে দুটো ফেক আইডি থেকে আমি ও আমার সিনিয়র নেতৃবৃন্দের নামে এমন সব বাজে ভাষায় মিথ্যা,বানোয়াট লেখালেখি করছে যা কোন সুবিবেকবান মানুষকে আহত করবে।

    স্টাটাসটি জনশক্তি পাঠকের জন্য তুলে ধরা হল:

    প্রতিটি মানুষই দোষে গুনে,কেহ কম কেহ বেশী।প্রবাসে যারা রাজনীতি বা সমাজনীতি করি বা করেন অনেকটা বেকার কামলার মত।উদ্দেশ্য দলের আদর্শ প্রচার এবং কিছু সামাজিক কাজে সহযোগিতা।
    এ কর্মগুলো অনেকে মেনে নেয়,অনেকে আবার বাকা চোখেও দেখে,দেখেই শেষ নয় মাঝে মধ্যে এমন সব কিছু করে বসে যা একে বারেই অসভ্যতা।
    অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে লেবাননে আজ সুসংগঠিত একটি আঃলীগ সংগঠন আছে।এটা যেন অনেকের ঘুম হারাম হবার কারন।
    ইদানিং লক্ষ করা যাচ্ছে দুটো ফেক আইডি থেকে আমি ও আমার সিনিয়র নেতৃবৃন্দের নামে এমন সব বাজে ভাষায় মিথ্যা,বানোয়াট লেখালেখি করছে যা কোন সুবিবেকবান মানুষকে আহত করবে।
    আমাকে এক সপ্তাহের আল্টিমেটাম দেয়া হচ্ছে দেখে নেবে। লাশ সাগরে ভাসাবে,আরো অনেককিছু।
    জনাব ফেক আইডি কে বলবো— জন্মিলে মরিতে হয়,এতে মোর নাহি ভয়।
    আপনার যদি সৎসাহস থাকে সামনে এসে অথবা পরিচয় প্রদান করে লিখুন ইদুরের মত গর্ত থেকে কেনো?মানুষকে ভালোবাসুন সমাজকে ভালো রাখুন।মায়ের দুধের মর্যাদা দিন বিরের মত। কাপুরুষ সেজে মায়ের দুধের বদনাম করছেন কেনো?
    চ্যালেন্চ দিলাম যদি পারি বুজিয়ে ভাই বানাবো না পারলে পা ছুয়ে ক্ষমা চাইবো।
    মনে রেখো —” পরাজয়ে ডরেনা বীর”

    আরও পড়ুন

    [X]