১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করেছে মালয়েশিয়া যুবদল ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন কন্ঠশিল্পী মমতাজ সিংগাইরে শয়ন কক্ষ থেকে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার মানিকগঞ্জে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭ জন সালথায় সহিংসতায় ৪ হাজার জনকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ ‘শিশু বক্তা’ মাওলানা রফিকুল ইসলামকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেয়ার অভিযোগ! সিঙ্গাইর সদর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক সেলিম ও যুগ্ম-আহ্বায়ক সালাম ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদ ও থানা ঘেরাও, এসিল্যান্ড অফিসে আগুন সিঙ্গাইরে লকডাউন কার্যকরে তৎপর প্রশাসন করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও অপরাধ নির্মূলে তৎপর সিঙ্গাইর থানা পুলিশ

লেবাননে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

জনশক্তি রিপোর্ট

বাংলাদেশ দূতাবাস লেবাননের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। বুধবার (১৭মার্চ) স্থানীয় সময় সকাল ১০ঘটিকায় বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাসের হল রুমে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন এবং কেক কাটার মধ্য দিয়ে আলোচনা সভার শুরু হয়। দূবাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) আব্দুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোঃ জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান (পিএসসি)।

সভায় বাংলাদেশ থেকে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শুনান দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) আব্দুল্লাহ আল মামুন, তৃতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল শাফি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাইদুর রহমান ও আরমান প্রধান।

এছাড়া সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন দূতাবাস কর্মকর্তা খালেদ মাহমুদ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জীবনীর উপর আলোকপাত করেন কমিউনিটি নেতা জামাল হোসেন, আশফাক তালুকদার, আবুল বাশার প্রধান সহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ লেবানন শাখার নেতৃবৃন্দ। সব শেষে রাষ্ট্রদূতের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘটে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বঙ্গবন্ধ তার নিজের গুণাবলী দিয়ে একজন মহান নেতায় পরিনত হয়েছিলেন। তিনি শুধুমাত্র দেশের জন্য জীবনের অনেকটা সময় কারাবরণ করেছেন। তিনি চাইলে আরাম আয়েশের জীবন যাপন করতে পারতেন, কিন্তু বাংলার মানুষের জন্য তিনি জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ৭২ থেকে ৭৫পর্যন্ত এত কম সময়েও বঙ্গবন্ধু তার সঠিক ও বলিষ্ট্য নেতৃত্বে দেশকে গঠন করছিলেন। যুদ্ধ পরবর্তী সময় তিনি সঠিক হাতে দেশের হাল ধরেছিলেন বলেই আজো আমরা বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে রয়েছি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু গরিব ও মেহনতী মানুষের কথা বলতেন, এই জন্য গ্রাম বাংলার মানুষের কাছে তিনি অনেক বেশী জনপ্রিয়। দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্থ করতেই তাকে ঘাতকরা স্বপরিবারে হত্যা করে।

প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রদূত বলেন, আসুন আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ গড়ার কাজে নিয়োজিত হবার শপথ গ্রহণ করি।

এসময় বাংলাদেশ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ, লেবানন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন