২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
মালয়েশিয়ায় স্বাধীনতার সুবর্ন জয়ন্তী ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা। সিঙ্গাইর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শতভাগ পাশ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ বুকিত বিনতাং শাখার আলোচনা সভা তিন বছর পর বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করায় দোয়া মাহফিল সিঙ্গাইরের জয়মন্টপে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অটোরিক্সার ইঞ্জিনে চাদর পেঁচিয়ে সিঙ্গাইরে ব্যবসায়ীর মৃত্যু সিঙ্গাইরে চোখ উপড়ানো ডাকাতের লাশ উদ্ধার সিঙ্গাইর সদরে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কার্যক্রম অনুষ্ঠিত বিজয় দিবস উপলক্ষে সিঙ্গাইরে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প বিজয় দিবসে বীর শহীদদের স্বরণ করল সিঙ্গাইর থানা পুলিশ।
  • প্রচ্ছদ
  • লেবানন বিএনপির অনুমোদিত কমিটিকে প্রত্যাক্ষান করে সাংবাদিক সম্মেলন
  • লেবানন বিএনপির অনুমোদিত কমিটিকে প্রত্যাক্ষান করে সাংবাদিক সম্মেলন

    জনশক্তি রিপোর্ট:

    লেবানন বিএনপির অনুমোদিত কমিটিকে প্রত্যাক্ষান করে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে লেবানন বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। তাদের অভিযোগ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক কমিটিতে অনেক যোগ্য নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে তাদের মন গড়া কমিটি করেছেন। এছাড়া গঠিত কমিটিতেও সিনিয়র ও দলের ত্যাগী নেতাদের অবমূল্যায়ন করা হয়েছে। সভাপতি মফিজুল ইসলাম বাবু, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আইমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান তাদের নিজেদের ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য এমন মনগড়া কমিটি করেছেন বলে তারা সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করেন।

    এই কমিটিকে বিলুপ্ত করে সকল নেতাকর্মীদের সমন্নয়ে নতুন করে কমিটি করা আহবান করেন তারা, অন্যথায় এর কঠিন মূল্য দিতে হবে বলেও হুশিয়ারি দেন এই নেতৃবৃন্দ।

    রবিবার (১১ জুলাই) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক উপদেষ্টা সেলিম মিয়াজী, আব্দুল হালিম, আমির হোসেন কলিম, কাউছার আলম, সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম মজুমদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মজিবুল হক মজিব, সাবেক সহ সভাপতি আবু বক্কর, মো. জসিম, সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক আরমান হোসেন আমান, সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুল মোতালেব, সাবেক সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক নাজমুল আহসান, সাবেক মহিলা সম্পাদিকা জাহানারা সাথী, প্রীতি আক্তার, বিল্লাল হোসেন বেপারী সহ অনেকে।

    এছাড়া টেলি কনফেরান্সে যোগ দেন সাবেক যুগ্ন আহবায়ক আব্দুল কাদের।

    তারা বলেন, বর্তমান সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক কাউকে না জানিয়ে নিজেদের বিশেষ ফায়দা লুটতেই গোপনে কমিটি গঠন করে সৌদি আরব পশ্চিম বিএনপির নেতা ও মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির সমন্নয়ক আহমদ আলী মুকিবের মাধ্যমে দলের মহা সচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হতে কমিটির আনুমোদন আনেন। কিন্তু কিভাবে, কখন কাদের নিয়ে পূর্নাঙ্গ কমিটি করা হল কবে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হল, তা লেবানন বিএনপির কতিপয় দুএকজন নেতা ছাড়া কেউ জানেন না। কমিটি প্রকাশের পর দেখা যায় অনেক ত্যাগী নেতাকর্মীর নাম নেই এবং গঠিত কমিটিতে লেবানন বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সহ সিনিয়র নেতাদের অবমূল্যায়ন করা হয়েছে। সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক তাদের নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে কমিটি গঠন করেছেন। যা সম্পন্ন ভাবে একটি পকেট কমিটিতে পরিনত হয়েছে।

    তারা আরো বলেন, লেবানন বিএনপি অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে দীর্ঘ দুই বছর পর ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। কিন্তু এই ঐক্যবদ্ধ লেবানন বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদককে কুপরামর্শ দিয়ে ফের ভাঙ্গনের পায়তারা করছেন সৌদি আরব পশ্চিম বিএনপির অগ্রহনযোগ্য আহবায়ক আহমদ আলী মুকিব। বিভিন্ন পত্রপত্রিকা, প্রিন্ট ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও সুশাল মিডিয়ার বরাত দিয়ে জানা যায়, আহমদ আলী মুকিব ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে রাতের আঁধারে তার পছন্দের লোক দিয়ে নিজেকে আহবায়ক করে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাম ভাঙিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর থেকে অনুমোদন আনেন। সেই কমিটি প্রকাশের পর ক্ষোভে ফেটে উঠে সৌদি আরব পশ্চিম বিএনপির নেতাকর্মীরা। প্রত্যাক্ষান করেন আহমদ আলী মুকিব গঠিত কমিটি। ঠিত একই প্রক্রিয়ায় আহমদ আলী মুকিবের যুক্তি বুদ্ধিতে লেবানন বিএনপির তিন নেতা রাতের আঁধারে কমিটি গঠন করে এই আহমদ আলী মুকিবের মাধ্যমে অনুমোদন আনেন।

    নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, কমিটি গঠন প্রসংগে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদককে সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সুপরামর্শ দিয়েছিলেন, কিন্তু তারা কারো কথা না রেখেই গঠন করেন এই পকেট কমিটি। তাই নেতৃবৃন্দ এই কমিটিকে অবৈধ ঘোষণা করে অনুমোদিত কমিটি ঘৃনা ভরে প্রত্যাক্ষান করেন।

    আরও পড়ুন