১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • শিবির সংশ্লিষ্টতা থাকায় কোটা আন্দোলনকারীদের জোটে নেবে না ছাত্রদল
  • শিবির সংশ্লিষ্টতা থাকায় কোটা আন্দোলনকারীদের জোটে নেবে না ছাত্রদল

    জনশক্তি রিপোর্ট:  ডাকসু নির্বাচনকে সামনে রেখে কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে জোট না গড়াটাই যৌক্তিক হবে বলে মনে করছে ছাত্রদল। ছাত্রশিবিরের সঙ্গে কোটা আন্দোলনকারীদের নেতাদের সংশ্লিষ্টতা থাকায় বিতর্ক এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপির ভ্যানগার্ড বলে পরিচিত এই সংগঠনটি। দলের সাবেক ও বর্তমান নেতাদের এক বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

    খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর মধ্যে ১৯৯৯ সাল থেকে জোট থাকলেও দল দুটির ছাত্রসংগঠনের অবস্থান বরাবরই বৈরী। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের সময় ১৯৯০ সালে পরিবেশ পরিষদের বৈঠকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্মিলিতভাবে নিষিদ্ধ করা হয় ছাত্রশিবিরকে। সেই ছাত্র সংগঠনগুলোর মধ্যে ছাত্রদলও অন্যতম।

    জানা গেছে, যুদ্ধাপরাধের বিচারের ‘আন্দোলনে’ কোণঠাসা শিবির ২০১২ সালে ঐক্যের উদ্যোগ নিলেও ছাত্রদলের অনাগ্রহে তা ভেস্তে যায়। ডাকসু নির্বাচনকে সামনে রেখে শিবির নিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া থাকায় দলটি নিজের জনপ্রিয়তা বাড়াতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

    সংগঠনটির সাবেক ও বর্তমান কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ডাকসু নির্বাচন নিয়ে দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে নিয়মিতই বৈঠক হয়। তবে সোমবার এক বৈঠকে দলের সাবেক ও বর্তমান নেতারা কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে জোট না গড়ার পক্ষে মত দিয়েছেন। এর কারণ হিসেবে দলের নেতারা কোটা আন্দোলনকারী শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে ছাত্রশিবিরের সঙ্গে যোগসূত্র আছে বলে মনে করেন।

    ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের এক কেন্দ্রীয় নেতা। তিনি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ডাকসু নির্বাচনে বিএনপির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা সাবেক ছাত্রদল সভাপতি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। এতে দলের সাবেক-বর্তমান অনেক নেতার পাশাপাশি ছাত্রদলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা মত প্রকাশ করেন। এ সময় দলের একজন সহ সভাপতি কোটা আন্দোলনকারীদের বিষয়টি তুললে তারা কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে জোট না গড়াটাই যৌক্তিক বলে মত দেন।

    ওই নেতা আরও বলেন, বৈঠকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন। তারা কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কয়েকবার বৈঠকের কথা জানিয়েছেন। তবে ছাত্রদলের বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে কোটা আন্দোলনকারী কয়েকজন নেতা বিভিন্ন আবদার করেন। যা মেনে নেওয়াও সম্ভব না।

    তিনি জানান, কোটা আন্দোলনকারীদের একটা অংশ বামপন্থীদের সঙ্গে পরিকল্পনা নিয়েছে। তবে সেদিকেই বেশি যোগাযোগ করছে।

    এ বিষয়ে ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সম্পাদকমণ্ডলীর একজন সদস্য বলেন, কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে শিবির সংশ্লিষ্টতা ছিল- এটা ওই বৈঠকে দলের অনেক নেতার আলোচনায় উঠে এসেছে। ছাত্রশিবিরের বিষয়ে আমরা কোনো আপোষ করবো না। তবে বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক কৌশলের অংশ হিসেবেই আমরা প্রকাশ্যে বলতে পারছি না।

    তবে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেন এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা স্বীকার করতে চাননি। তিনি বলেন, কোটা আন্দোলনকারীদের বিষয়ে আমাদের কোনো বৈঠক হয়নি। এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্তও হয়নি।

    কোটা আন্দোলনকারীরা জোটে আসতে চাইলে আপনারা নেবেন কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, বিষয়টি আমরা নিজেরা আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিব।

    শিবির সংশ্লিষ্টতার পাওয়ায় বিতর্ক এড়াতে তাদের জোটে নেয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘না, সেরকম কিছু না। নতুন কিছু হলে জানতে পারবেন।’

    জউস/জনশক্তি

    আরও পড়ুন

    [X]