২০শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

সাংবাদিককে মামলার হুমকি দিলেন জীবননগর থানার ওসি

জনশক্তি রিপোর্ট: সাংবাদিককে মামলার হুমকি দিলেন জীবননগর থানার ওসিজীবননগর শহরের পুরাতন লক্ষীপুরে অসম প্রেমিক জুঁটিকে জনতা আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ ও গভীর রাতের ছেড়ে দেওয়ার ঘটনায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেছে ওসি গনি মিয়া। সাংবাদিক জামাল হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় জিডি ও মামলার হুমকি দেনতিনি। এ ঘটনায় সাংবাদিক সমাজের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, জীবননগর পৌর শহরের পুরাতন লক্ষীপুর ব্রীজ মোড় পাড়ায় মতিয়ার রহমানের কলেজ পড়ুয়া মেয়ের সাথে একই গ্রামের বিশিষ্ট মিল চাতাল ব্যাবসায়ী লিটন খাঁর ছেলে নবম শ্রেণীর ছাত্র আহাদকে সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ঘরের মধ্যে আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ে স্থানীয় জনতা তাদেরকে আটক করেন। ঘটনাটি নিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে জীবননগর থানার ওসি শেখ গনি মিয়া সেখানে পৌছান এবং পরিস্থিতি সামাল দেয়ার এক পর্যায়ে প্রেমিক জুঁটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। পরবর্তীতে ওই প্রেমিক জুঁটিকে রাত আড়াইটার দিকে থানা থেকে ছেড়ে দেয়া হয়। ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় গ্রামবাসীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃ‌ষ্টি হয় এবং গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে মোটা অংকের টাকার ম্যানেজ প্রক্রিয়ায় তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যম ও অনলাইন পত্রিকায় বুধবার সংবাদ প্রকাশিত হয়।

কিন্তু সংবাদ প্রকাশের ঘটনায় সাংবাদিক জামাল হোসেনের উপর তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে জীবননগর থানার ওসি শেখ গনি মিয়া। তিনি বুধবার ১২ টা ১১ মিনিটে সাংবাদিক জামাল হোসেনের মোবাইল ফোনে হুমকি দিয়ে বলেন আপনি জে পেপারে লিখেছেন আপনার বিরুদ্ধে আমি জিডি করছি এবং মানহানির মামলা করবো।

এদিকে জানা গেছে, ওসি গনি মিয়া প্রেমিক জুঁটির পরিবারকে প্রভাবিত করে সাংবাদিক জামালের বিরুদ্ধে জিডি করেছে মর্মে গ্রামে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে । এ খবর সাংবাদিক সমাজের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয় এবং সাংবাঁদিকের বিরুদ্ধে ওসির হুমকি সাংস্কৃতিক সমাজকে ভাবিয়ে তুলেছে।

এ ব্যপারে জীবননগর সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আতিয়ার রহমান বলেন, প্রকাশিত সংবাদে জীবননগর থানার ওসি কিম্বা পুলিশের বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট কোনো অভিযোগ না থাকলেও সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ওসির জিডি ও মামলা করার হুমকি দুঃখজনক। আমরা এ ঘটনায় পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

জীবননগর প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম আর বাবু বলেন, ওসি কি করে দেখা যাক। তারপর অন্য ব্যবস্থা। তবে ওসির এ ধরনের হুমকির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এ ব্যপারে জীবননগর থানার ওসি শেখ গনি মিয়া বলেন, প্রকাশিত নিউজে বলা হয়েছে, ওসিকে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করে প্রেমিক জুৃটিকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন