১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সিঙ্গাইরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, পুরে ছাই একটি বাড়িসহ তিন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ইউপি নির্বাচন: দলীয় না নির্দলীয় হবে, এ নিয়ে দ্বিধায় আ.লীগ ৬০ পৌরসভা নির্বাচন: ৪৬টিতে আ.লীগ ও চারটিতে বিএনপির জয় কাউন্সিলরের ভোট গোপন কক্ষে, বাইরে মেয়র প্রার্থীর ভোট আনন্দ মিছিলে হামলা, বিজয়ী কাউন্সিলর খুন দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভায় নির্বাচন: বিএনপির তিন প্রার্থীর ভোট বর্জন সাভারে মেয়রপুত্র কাছে লাঞ্ছিত সাংবাদিক মালয়েশিয়া সরকারের ১৩ জানুয়ারি থেকে কড়া বিধিনিষেধের মাঝেও দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরন ওয়ালটন দিঘলিয়া প্রিমিয়ার লিগের ফাইনালে সুপার সিক্সার্স ৫২ পৌরসভায় ধানের শীষের টিকিট পেলেন যারা

হোয়াইট হাউস থেকে ক্লিনটন ও বুশের প্রতিকৃতি সরালেন ট্রাম্প

জনশক্তি ডেস্ক:

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রথা ভেঙে হোয়াইট হাউস থেকে সাম্প্রতিককালের তাঁর দুই পূর্বসূরি বিল ক্লিনটন ও জর্জ ডব্লিউ বুশের প্রতিকৃতি সরিয়ে ফেলেছেন। হোয়াইট হাউসের গ্র্যান্ড ফয়েরে টাঙানো ছিল তাঁদের প্রতিকৃতি। গত শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্র্যান্ড ফয়ের কক্ষে সাধারণত সাম্প্রতিক সময়ের সাবেক প্রেসিডেন্টদের প্রতিকৃতি টাঙানো হয়ে থাকে। এখন এই দুজনের ছবি ওল্ড ফ্যামিলি ডাইনিং কক্ষে রাখা হয়েছে। এই কক্ষ বেশ ছোট এবং খুব কম লোকই সেখানে যান। ফলে প্রতিকৃতিগুলো বেশির ভাগ দর্শনার্থীর চোখ এড়িয়ে যায়। কক্ষটি টেবিলক্লথ ও আসবাব রাখার কাজে প্রধানত ব্যবহার করা হয়।

সিএনএনকে সূত্রগুলো বলেছে, বিল ক্লিনটন ও ডব্লিউ বুশের প্রতিকৃতির স্থানে টাঙানো হয় ১৯০১ সালে নিহত হওয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম ম্যাককিনলে ও তাঁর ভাইস প্রেসিডেন্ট থিয়োডো রুজভেল্টের প্রতিকৃতি। ম্যাককিনলে মারা যাওয়ার পর প্রেসিডেন্ট হন রুজভেল্ট।

সিএনএন বলছে, বিল ক্লিনটন ও জর্জ বুশকে একদম পছন্দ নয় ট্রাম্পের। আগে যেখানে তাঁদের ছবি টাঙানো ছিল, সেখানে প্রায় প্রতিদিনই তাঁদের প্রতিকৃতি চোখে পড়ত ট্রাম্পের।

ট্রাম্পের সাবেক জাতীয় উপদেষ্টা জন বোল্টন তাঁর সম্প্রতি প্রকাশিত বইতে বলেছেন, জর্জ বুশ ও তাঁর বাবা সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ উভয়কেই ঘৃণা করেন ট্রাম্প। আর ক্লিনটনের স্ত্রী হিলারি ক্লিনটন ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রার্থী হওয়ায় তাঁর রোষানলে পড়েন বিল ক্লিনটন। প্রায়ই তাঁর নেতৃত্বের সমালোচনা করেন ট্রাম্প। এদিকে ট্রাম্পের সরাসরি পূর্বসূরি বারাক ওবামার প্রতিকৃতি আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো টাঙানো হয়নি। ট্রাম্পের প্রথম মেয়াদে সেই সম্ভাবনাও নেই। ওবামাকেও প্রায়ই সমালোচনা করতে দেখা যায় ট্রাম্পকে।

আরও পড়ুন